*শান্তিপুর থানার তৎপরতায় উদ্ধার হল বিলুপ্ত প্রজাতির একটি তক্ষক*

*শান্তিপুর থানার তৎপরতায় উদ্ধার হল বিলুপ্ত প্রজাতির একটি তক্ষক*

ঋদ্ধি চৌধুরী,

শান্তিপুর থানার তৎপরতায় উদ্ধার হল বিলুপ্ত প্রজাতির একটি তক্ষক। পুলিশ সূত্রে জানা যায় গতকাল প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণে শান্তিপুর ব্লকের ফুলিয়া মালিপোতা এলাকার বাসিন্দা রনা বিশ্বাসের বাড়িতে হঠাৎই ঢুকে পরে ওই বিলুপ্ত প্রজাতির তক্ষক টি। পরিবারের লোকজন লক্ষ্য করলে তৎক্ষণাৎক শান্তিপুর থানায় ফোন করে রনা বিশ্বাস। সাথে সাথেই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় শান্তিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক সুমন দাস, এবং কিভাবে বাড়িতে ঢুকে গেল তক্ষক টি এই নিয়ে পরিবারকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরিবার সমস্ত ঘটনা খুলে বলার পর সেখান থেকে উদ্ধার করে শান্তিপুর থানা নিয়ে আসা হয়। বুধবার বনদপ্তর কে ফোন করে জানায় শান্তিপুর থানার পুলিশ, সে মতোই বুধবার বেলা দুটো ত্রিশ নাগাদ শান্তিপুর থানা পৌঁছায় বনদপ্তর এর কর্মী ও শান্তিপুরে বন্যপ্রাণী উদ্ধারকারী অনুপম সাহা। বেশ খানিকটা সময় আইনানুগ লিখিত পড়িত করে ওই বিলুপ্ত প্রজাতির তক্ষক টিকে বনদপ্তর হাতে তুলে দেয় শান্তিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক সুমন দাস। এ বিষয়ে ওসি সুমন দাস জানান, এটি সম্ভবত বিলুপ্ত প্রায় প্রজাতির একনম্বর তালিকাভুক্ত প্রাণী, এর নাম তক্ষক হলেও গেকো বলে পরিচিত। স্বভাবতই শান্তিপুর থানার ভূমিকায় যথেষ্ট সাধুবাদ জানিয়েছে বনদপ্তর আধিকারিকরা তবে এই ধরনের বিলুপ্ত প্রজাতির তক্ষক পাহাড়ি অঞ্চল ছাড়া সমতল অঞ্চলে খুব একটা দেখা যায় না বলে জানা যায় বনদপ্তর এর কাছ থেকে। শান্তিপুর থানার পক্ষ থেকে এলাকায় কখনো যদি এই ধরনের প্রাণীর সন্ধান পাওয়া যায় তাহলে শান্তিপুর পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে অথবা বনদপ্তর এর সাথে যোগাযোগ করার আবেদন জানায় শান্তিপুর থানার পুলিশ।

प्रदेश बड़ी खबर